হোম »  হার্ট »  এক গ্লাস কমলালেবুর রস সুস্থ রাখবে হৃদযন্ত্রকে

এক গ্লাস কমলালেবুর রস সুস্থ রাখবে হৃদযন্ত্রকে

যারা নিয়মিত কমলা লেবুর রস খান তাদের মধ্যে ১২ থেকে ১৩% হার্টের রোগে ভোগার আশঙ্কা কম হয় বলে জানা গিয়েছে। কারণ কমলালেবুর রস আর্টারির ক্ষতিকে আটকাতে পারে।

এক গ্লাস কমলালেবুর রস সুস্থ রাখবে হৃদযন্ত্রকে

টাটকা ফলের রস তৈরি করে খান

হাইলাইট

  1. কমলালেবুর রস স্ট্রোকের আশঙ্কা কমায়
  2. টাটকা লেবুর রস তৈরি করে খেতে হবে
  3. প্যাকেটজাত লেবুর রস খেলে উপকার কতটা হবে তা নিয়ে সংশয় রয়েছে

প্রতিদিন এক গ্লাস কমলা লেবুর রস আপনাকে স্ট্রোকের আশঙ্কা থেকে বেশ অনেকটাই সুরক্ষিত রাখতে পারে বলে এক সাম্প্রতিক গবেষণায় জানা গিয়েছে। গবেষণাটি প্রকাশিত হয়েছে ব্রিটিশ জার্নাল অফ নিউট্রিশনে। সেখানে দেখানো হয়েছে যারা প্রত্যেকদিন কমলা লেবুর রস খান তাদের ক্ষেত্রে ব্রেনে ক্লটের সমস্যা ২৪% কম হয়।—ডেইলি মেইল'-এর রিপোর্টে প্রকাশিত।

জানেন কি খাবারের পরিবর্তন হলে বদলাতে পারে আপনার ভাষা ও কথা বলাও?

যারা নিয়মিত কমলা লেবুর রস খান তাদের মধ্যে ১২ থেকে ১৩% হার্টের রোগে ভোগার আশঙ্কা কম হয় বলে জানা গিয়েছে। কারণ কমলালেবুর রস আর্টারির ক্ষতিকে আটকাতে পারে।


তবে প্রক্রিয়াজাত বা প্যাকেটজাত নয়, কমলা লেবু কিনে এনে টাটকা রস করে খেতে হবে এবং অবশ্যই চিনি ছাড়া খেতে হবে বলে জানিয়েছেন গবেষকেরা।

গবেষণাটি দেখিয়েছে যে, চিনি থাকলে সেই কমলা লেবুর রস স্ট্রোক আটকানোর ক্ষেত্রে খুব একটা কার্যকর ভূমিকা নিতে পারে না।

রোজ পাতে একটা করে ডিম কি নিঃশব্দে ডেকে আনছে মৃত্যুকেই!

নেদারল্যান্ডের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট ফর পাবলিক হেলথের গবেষকরা বলেছেন, ‘‘টাটকা কমলালেবুর রস খাওয়ার সঙ্গে স্ট্রোক আটকানোর একটা ভালো সংযুক্তিকরণ আমাদের চোখে পড়েছে। শুধুমাত্র কমলালেবুর রসই নয়, অন্যান্য বহু ফলের রসও এ ক্ষেত্রে যথেষ্ট উপকারী হিসেবে কাজ করতে পারে।''

ফলের রসের মধ্যে থাকা উপাদান ব্লাড ভেসেলকে রোগের থেকে সুরক্ষিত রাখতে সাহায্য করে। তবে গবেষণাকারী দলটি জানিয়েছে, তারা কখনোই প্যাকেটজাত কমলা লেবুর রস খাওয়াকে সমর্থন করছেন না। এই পরীক্ষাটি করা হয়েছিল ৩৫০০০ পুরুষ এবং নারীর উপরে যাদের বয়স কুড়ি থেকে সত্তর বছরের মধ্যে।



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)
মন্তব্য

স্বাস্থ্যের খবর সাথে সুস্থ থাকার জন্য অভিজ্ঞদের টিপস, ডায়েট পরিকল্পনা জানতে, লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

................... বিজ্ঞাপন ...................

................... বিজ্ঞাপন ...................

................... বিজ্ঞাপন ...................

-------------------------------- বিজ্ঞাপন -----------------------------------