হোম »  লিভিং হেলথি »  Antibiotics: অ্যান্টিবায়োটিক খেয়ে কী কী বিপদ ডেকে আনছেন অজান্তে! জানেন?

Antibiotics: অ্যান্টিবায়োটিক খেয়ে কী কী বিপদ ডেকে আনছেন অজান্তে! জানেন?

সংক্রমণজনিত রোগ হয়ত কমে ঝটপট। কিন্তু, খারাপ ছাপ ছেড়ে যায় শরীরে। ভালো ব্যাকটেরিয়াকে ধ্বংস করে।

Antibiotics: অ্যান্টিবায়োটিক খেয়ে কী কী বিপদ ডেকে আনছেন অজান্তে! জানেন?

Antibiotics: সাইনাস আর ত্বকের সংক্রমণ সহজেই সারায় অ্যান্টি বায়োটিক

হাইলাইট

  1. বেশির ভাগ সংক্রমণ কমায় অ্যান্টি বায়োটিক
  2. একই সঙ্গে ভালো ব্যাকটিরিয়াদের নষ্ট করে দেয়
  3. এতে ক্ষতিকর ব্যাকটিরিয়া সংখ্যায় বাড়ে

রোগ-ব্যাধি থেকে সহজে মুক্তি পেতে আমরা দরকারে-অদরকারে মুঠো মুঠো অ্যান্টিবায়োটিক (antibiotics) খাই। অনেক সময় ডাক্তারের পরামর্শে। অনেক সময় নিজেই নিজের ডাক্তারবাবু সেজে। ফলাফল, সংক্রমণজনিত রোগ হয়ত কমে ঝটপট। কিন্তু, খারাপ ছাপ ছেড়ে যায় শরীরে। ভালো ব্যাকটেরিয়াকে ধ্বংস করে। যার জন্য শরীরে খারাপ ব্যাকটেরিয়ার দৌরাত্ম্য বাড়ে। অ্যান্টিবায়োটিকের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার মাশুল তারপর গুণতে হয় আজীবন। তার চেয়ে কোন অ্যান্টিবায়োটিক কম ক্ষতিকর, কোনটায় পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া (Common Side Effects) কম, কতটা খেলে সুস্থ হবেন ওষুধের খারাপ প্রভাব ছাড়াই---এই নিয়ে আলোচনায় NDTV। 

কীভাবে কাজ করে অ্যান্টিবায়োটিক?


একেক রকমের অ্যান্টিবায়োটিকের কাজ একেক রকম

১. নিউমোনিয়া কমাতে সাধারণত ডাক্তারবাবুরা দেন ক্যুইনোলোনস। এই কম্পোজিশন মেলে লেভোফ্লক্সাসিন আর সিপ্রোফ্লক্সাসিনে। 

২. পেনিসিলিনের মতো অ্যান্টিবায়োটিক কোষের গায়ে লেগে থাকা ব্যাকটেরিয়া ধ্বংস করে। 

৩. এরিথ্রোমাইসিনে থাকে ম্যাক্রোলাইড অ্যান্টিবায়োটিক। এরা কোষের মধ্যে থাকা ব্যাকটিরিয়া রাইবোসোমকে আক্রমণ করে। এবং ত্বকের বিভিন্ন সংক্রমণের বিরুদ্ধে লড়াই করে। 

c9fvhhgo

ত্বকের সংক্রমণ কমাতে ব্যবহার করা হয় অ্যান্টিবায়োটিক।
সৌজন্যে: আই স্টক

অর্থাৎ, এক একটি অ্যান্টিবায়োটিক একেক ভাবে কাজ করে। এগুলি শরীরের ক্ষতিকারক ব্যাকটেরিয়া মেরে আপনাকে সুস্থ থাকতে সাহায্য করে।

Aloe Vera: অ্যালোর আলোয় কুপোকাত ওবেসিটি, ত্বক-চুলের সমস্যা! আর...?

অ্যান্টিবায়োটিকের ব্যবহার

সমস্ত ব্যাকটিরিয়া সংক্রমণেই সাধারণত অ্যান্টিবায়োটিক ব্যবহার করা হয়। তবে সবটাই পর্যাপ্ত পরিমাণে।

ব্রড-স্পেকট্রাম অ্যান্টিবায়োটি: একসঙ্গে অনেক ব্যাকটিরিয়া সংক্রমণ ছড়ালে ব্যবহৃত হয়।

লিমিটেড স্পেকট্রাম অ্যান্টিবায়োটি: কেবলমাত্র নির্দিষ্ট ব্যাকটিরিয়ার আক্রমণ ঠেকাতে ব্যবহৃত হয়।

আপনার কোন রোগে কী ধরনের অ্যান্টিবায়োটিক নেবেন তা ঠিক করবেন চিকিৎসক।

অ্যান্টিবায়োটিকের সাহায্যে সাধারণ এই রোগগুলি কমে:

১. ত্বকের সংক্রমণ।

২. নিউমোনিয়া।

৩. কিডনি বা অন্ত্রের সংক্রমণ।

৪. সাইনাস সংক্রমণ।

৫. কানে সংক্রমণ।

৬. মেনিনজাইটিস।

৭. দাঁতের সংক্রমণ।

অ্যান্টিবায়োটিকের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া

কিছু ক্ষেত্রে, অ্যান্টিবায়োটিকগুলি ক্ষতিকারকগুলি জীবাণু নষ্ট করার পাশাপাশি আপনার শরীরের ভাল ব্যাকটেরিয়াগুলিকেও নষ্ট করে দেয়। এতে ক্ষতিকারক ব্যাকটিরিয়ার সংখ্যা বাড়ে। সুতরাং, অ্যান্টিবায়োটিকের অত্যধিক ব্যবহারের ফলে আপনার শরীরে বিপরীত প্রভাব পড়তে পারে।ক্ষতিকারক ব্যাকটেরিয়ার সংখ্যা বেড়ে সংক্রমণ আরও বেড়ে যেতে পারে। 

উদ্বেগে প্রাণ ওষ্ঠাগত? রোজের এই ৭ অভ্যাস দায়ী নয়তো!

অ্যান্টিবায়োটিকের আরও কিছু পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া:

১. ডায়রিয়াল সংক্রমণ।

২. বমি বমি ভাব।

৩. পেটে ব্যথা।

৪. পেশিতে টান বা ব্যথা।

৫. পটির সঙ্গে রক্তপাত।

jml167l

পেশিতে টান ধরে বেশি অ্যান্টিবায়োটিক খেলে
সৌজন্যে: আই স্টক

সতর্কীকরণ: তথ্য অনুসরণের আগে বিশেষতজ্ঞের পরামর্শ নেওয়া একান্তই বাঞ্ছনীয়।

মন্তব্য

স্বাস্থ্যের খবর সাথে সুস্থ থাকার জন্য অভিজ্ঞদের টিপস, ডায়েট পরিকল্পনা জানতে, লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

................... বিজ্ঞাপন ...................

................... বিজ্ঞাপন ...................

 

................... বিজ্ঞাপন ...................

-------------------------------- বিজ্ঞাপন -----------------------------------