হোম »  লিভিং হেলথি »  সংক্রামক রোগে ভুগে প্রতি বছর ৪৬% শিশু মারা যায় এই দেশে

সংক্রামক রোগে ভুগে প্রতি বছর ৪৬% শিশু মারা যায় এই দেশে

২০০৫ থেকে ২০১৬ সাল পর্যন্ত চিন, ভারত, ব্রাজিল ও মেক্সিকোতে ৫ থেকে ১৪ বছর বয়সী শিশুদের প্রায় ২.৫ লাখ মৃত্যুর তথ্য বিশ্লেষণ করা হয়েছে।

সংক্রামক রোগে ভুগে প্রতি বছর ৪৬% শিশু মারা যায় এই দেশে

২০১৬ সালে, ভারতের সংক্রামক রোগ (Communicable diseases) থেকে হওয়া মৃত্যুর প্রায় ৭৪,০০০ টিই প্রতিরোধযোগ্য বা চিকিত্সাযোগ্য

৫ থেকে ১৪ বছরের বাচ্চাদের মধ্যে রোগে ভুগে মৃত্যুর ৪৬ শতাংশেরও বেশির নেপথ্যে কারণ হিসেবে রয়েছে নিউমোনিয়া ও টিউবারকোলোসিসের (pneumonia and tuberculosis) মতো রোগ। ২০১৬ সালের একটি গবেষণায় দেখা যাচ্ছে এমনটাই। ২০১৬ সালে, ভারতের সংক্রামক রোগ (Communicable diseases) থেকে হওয়া মৃত্যুর প্রায় ৭৪,০০০ টিই প্রতিরোধযোগ্য বা চিকিত্সাযোগ্য। চারটি দেশ- ভারত, চিন, ব্রাজিল এবং মেক্সিকোতে সমগ্র মৃত্যুর এক তৃতীয়াংশের বেশি এবং বার্ষিক মৃত্যুর প্রায় অর্ধেক ঘটেছিল ৫ থেকে ১৪ বছরের বাচ্চাদের মধ্যেই। 

বিশ্ব ঘুম দিবস ২০১৯: জেনে নিন আপনার সুখনিদ্রা কীসে নিশ্চিত হবে

ভারতে এই সংক্রামক রোগের পাশাপাশি টিকা প্রতিরোধযোগ্য রোগগুলি চিনের তুলনায় প্রায় ২০ গুণ বেশি এবং ব্রাজিল ও মেক্সিকোর থেকেও ১০ গুণ বেশি ছিল বলে জানিয়েছে ল্যান্সেট জার্নাল প্রকাশিত একটি গবেষণা। টরন্টো ইউনিভার্সিটির ডাল্লা লানা স্কুল অফ পাবলিক হেলথের অধ্যাপক প্রভাত ঝা বলেন, “এই মৃত্যুর বেশিরভাগই এড়ানো যায় এবং আক্রান্তদের অনেকেই চিকিত্সাযোগ্য।" তাঁর কথায় “৫-১৪ বছরের বাচ্চাদের মধ্যে মৃত্যু বিশ্বজুড়ে বিরল হওয়া উচিত। সাশ্রয়ী, সহজে সম্ভাব্য এবং সাশ্রয়ী হস্তক্ষেপের মাধ্যমে এই বয়সের মৃত্যু উল্লেখযোগ্যভাবে হ্রাস পাওয়া সম্ভব।” 


এক কাপ গ্রিন টি-ই ঝরিয়ে দেবে অতিরিক্ত মেদ

২০০৫ থেকে ২০১৬ সাল পর্যন্ত চিন, ভারত, ব্রাজিল ও মেক্সিকোতে ৫ থেকে ১৪ বছর বয়সী শিশুদের প্রায় ২.৫ লাখ মৃত্যুর তথ্য বিশ্লেষণ করা হয়েছে। এই দেশগুলিতে এই বয়সের বাচ্চাদের মৃত্যুর হার ৪০%, অর্থাৎ এক বছরে প্রায় ২ লাখ শিশু মৃত্যু। ভারত ও চিনে ছেলেদের তুলনায় মেয়েদের মধ্যে সংক্রামক রোগের মৃত্যুর হার হ্রাস পেয়েছে।

তবে, চিন, মেক্সিকো এবং ব্রাজিলের তুলনায় অসংক্রামক রোগ ও আঘাতে মৃত্যুর হার এখনও ভারতেই বেশি। আবার অন্যদিকে, মেক্সিকো ও ব্রাজিলের তুলনায় ভারত ও চিনের সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যুর সংখ্যা বেশি। আঞ্চলিক পার্থক্য সত্ত্বেও, চারটি দেশে মৃত্যুর সাধারণ নেতৃত্বস্থানীয় কারণগুলির মধ্যে রয়েছে, সড়ক দুর্ঘটনা, জলে ডুবে যাওয়া, ক্যান্সার এবং স্নায়ুর রোগ।



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)
মন্তব্য

স্বাস্থ্যের খবর সাথে সুস্থ থাকার জন্য অভিজ্ঞদের টিপস, ডায়েট পরিকল্পনা জানতে, লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

................... বিজ্ঞাপন ...................

................... বিজ্ঞাপন ...................

 

................... বিজ্ঞাপন ...................

-------------------------------- বিজ্ঞাপন -----------------------------------
Listen to the latest songs, only on JioSaavn.com