হোম »  লিভিং হেলথি »  মুঠো মাপের কোমর চান? গ্রিন কফিতে গলা ভেজান

মুঠো মাপের কোমর চান? গ্রিন কফিতে গলা ভেজান

গ্রিন কফিতে আছে ক্রোরোজেনিক অ্যাসিড যা ওজন ঝরাতে সাহায্য করে। বাড়ায় BMR। এটি লিভারকে গ্লুকোজ মুক্ত করে। বাড়তি মেদ বার্ন করে।

মুঠো মাপের কোমর চান? গ্রিন কফিতে গলা ভেজান

চুমুকে চমক আনে স্বাদে সন্তুষ্টি

হাইলাইট

  1. গ্রিন কফির ক্লেরোজেনিক অ্যাসিড ফ্যাট ঝরায়
  2. খিদে কমিয়ে বেশি খাওয়ার প্রবণতা রোখে
  3. খাওয়ার পর খেলে ওজন বাড়বে না

আমরা সাধারণত রোস্টেড কফি খাই। কফি বীজ না ভেজে খেলে, অর্থাৎ কাঁচা অবস্থায় কফি বানিয়ে খেলে সেটাই গ্রিন কফি (Green coffee)। গ্রিন টি-এর তুতো ভাই গ্রিন কফি-ও ভীষণ উপকারি। ওজন কমায় (Lose Weight)। বশে রাখে সুগার। আর কী করে? জেনে নিন---  

গ্রিন কফি ওজনের যম?


ইন্ডিয়ান জার্নালের এক সমীক্ষা বলছে, গ্রিন কফিতে আছে ক্রোরোজেনিক অ্যাসিড যা ওজন ঝরাতে সাহায্য করে। বাড়ায় BMR। এটি লিভারকে গ্লুকোজ মুক্ত করে। বাড়তি মেদ বার্ন করে। যাঁরা খাবার দেখে নিজেদের সামলাতে পারেন না তাঁরা ভারী খাবার খাওয়ার পর চুমুক দিন এই কফিতে। ব্যস, তাহলেই ঝরে বেতসলতা।

4pl7vag

খিদে কমায় গ্রিন কফি

সৌজন্যে: আই স্টক

কখন খাবেন?

গ্রিন টি-র মতোই সকাল-বিকেল-সন্ধে খন খুশি খেতে পারেন গ্রিন কফি। তবে ভারী খাওয়ার পর কফির কাপে চুমুক দিলে সুগার নিয়ন্ত্রণে থাকবে। ঝরবে ওজনও। কারণ, খাবারের মধ্যে থাকা শর্করা কে েই কফি নাশ করে।  

বানাবেন কীভাবে?

ব্ল্যাক কফির মতোই বানানোর নিয়ম। বাড়তি উপকরণ এলাচ আর মধু। যার গন্ধ-স্বাদ আরও রমণীয় করবে গ্রিন কফিকে। 

৫ ভেষজে Diabetes বধ...ওষুধ ছাড়াই

রইল বাকি টিপস 

আর কীভাবে ঝরবেন:

১. আরও খান প্রোটিন

বেশি প্রোটিন মানেই কম ক্যালোরি। ডিম, বাদাম, ডাল, চিকেন, সয়া বড়িতে প্রোটিন প্রচুর। যা ওজন কমিয়ে মজবুত করে পেশি। 

২. গিলে নয় চিবিয়ে

গিলে গিলে খেলে খাবার হজম হয় না। ফলে, ওজন বাড়ে। মনোযোগ দিন খাওয়ার দিকে। খেয়াল রাখুন, ভালো করে চিবিয়ে খাচ্ছেন কিনা। এতেই আপনি মুঠো মাপের কোমরের মালকিন।

1un5sj28

ভালো করে চিবিয়ে খেলেও ওজন কমে
সৌজন্যে: আই স্টক

৩. খাবারে ছাঁটকাট

ছোট ডিশ বা বাটিতে নিয়ে খান। মনে হবে এতেই পেট ভরল। এটা সম্পূর্ণ মানসিক ব্যাপার। বড় পাত্রে নিলে বেশি খাবার নেবেন। বাড়তি টকাওয়া হবে। ওজন বাড়বে। ছোট প্লেটে বেশি খাবার ধরবে না। ফলে, বাড়তি খাবারের ভয় নেই।

গাঁজার গন্ধেই গায়েব মাথাব্যথা! টানলে কমবে মাইগ্রেনও...?

৪. ডায়েটে আরও ফাইবার

ফাইবার পেশি মজবুত করে। বাড়তি মেদ জমতে দেয় না শরীরে। খাবার হজম করায় দ্রুত। রোগা থাকেন আপনিও। দানাশস্য, ফল, সবজি, বাদাম, বীজশস্য, মটরশুঁটি, বিনস আর ডালে থাকে প্রচুর ফাইবার। তাই এসব থাক ডায়েটে।

৫. মন দিয়ে খান

টিভি, কাগজ বা বই পড়তে পড়তে নয়, খাবারের প্রতি মনোযোগী হয়ে খান। না হলে বেশি খাওয়া হয়ে যায়। ওজন বাড়ে। 

৬. শরীরচর্চা

কাজের মধ্যে দুই---খাই আর শুই করলে কিন্তু ওজন বাড়বেই। তাই খাওয়া নিয়ন্ত্রণের পাশাপাশি দরকার ঘাম ঝরানো। রোজ সকালে থক্ষণ পারেন যোগাভ্যাস বা ব্যায়াম করুন। শরীর হবে হালকা। আপনি থাকবেন তাজা।

t6300geo

রোজ ঘাম ঝরালে ওজন থাকবে বশে
সৌজন্যে: আই স্টক

সতর্কীকরণ: তথ্য অনুসরণের আগে বিশেষজ্ঞের পরামর্ষ নেওয়া বাঞ্ছনীয়।

মন্তব্য

স্বাস্থ্যের খবর সাথে সুস্থ থাকার জন্য অভিজ্ঞদের টিপস, ডায়েট পরিকল্পনা জানতে, লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

................... বিজ্ঞাপন ...................

................... বিজ্ঞাপন ...................

 

................... বিজ্ঞাপন ...................

-------------------------------- বিজ্ঞাপন -----------------------------------