হোম »  লিভিং হেলথি »  ষোলো মিনিট কম ঘুমও কর্মক্ষেত্রে আপনাকে পিছিয়ে দিতে পারে

ষোলো মিনিট কম ঘুমও কর্মক্ষেত্রে আপনাকে পিছিয়ে দিতে পারে

লি বলেছেন, ‘‘যারা পরিমাণ মতো ঘুমোন তারা কর্মক্ষেত্রে অনেক বেশি ফোকাসড থাকতে পারেন। এবং কর্মক্ষেত্রে তাদের দক্ষতাও বেশি প্রদর্শন করতে পারেন।

ষোলো মিনিট কম ঘুমও কর্মক্ষেত্রে আপনাকে পিছিয়ে দিতে পারে

হাইলাইট

  1. ঘুমের সঙ্গে বৌদ্ধিক পারফর্ম্যান্সের সম্পর্ক রয়েছে
  2. গবেষণায় প্রকাশিত কয়েক মিনিট কম ঘুমও কর্মক্ষেত্রে পারফর্ম্যান্সে ছাপ ফেলে
  3. দক্ষিণ ফ্লোরিডার এক বিশ্ববিদ্যালয়ে গবেষণাটি হয়েছে

রাতভর পার্টি শেষে পরের দিন সকালে ঘুম থেকে ওঠা এবং সারাদিনের জন্য নিজেকে প্রস্তুত করতে গিয়ে পদে পদে হোঁচট খেতে হয়। কারণ গত রাতের পার্টি শেষে দেরি করে ঘুমাতে যাওয়ার জন্য ঘুমের ঘাটতি রয়েই যায়। আর সেই কারণেই মনোযোগও ধাক্কা খায়। সাউথ ফ্লোরিডার একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকেরা গবেষণা করে দেখিয়েছেন, প্রতি দিনের ঘুমের পরিমাণের থেকে মাত্র ১৬ মিনিট যদি কম হয় তা হলে কর্মক্ষেত্রে পারফর্ম্যান্স রীতিমতো ধাক্কা খেতে পারে। গবেষণাপত্রটি প্রকাশিত হয়েছে ‘স্লিপ হেলথ জার্নালে'। সেখানে লেখা হয়েছে, যে সব ব্যক্তি কয়েক মিনিটও কম ঘুমোন তারা পরের দিন কর্মক্ষেত্রে সঠিক সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষেত্রে পিছিয়ে পড়েন। ‘‘কর্মক্ষেত্রে নিয়োগকারীদের উচিত তার কর্মীদের পরিমাণ মতো ঘুম সুনিশ্চত করা।'' এমনটাই মত গবেষণার মুখ্য লেখক সোমি লিয়ের। তিনি স্কুল অফ এজিং স্টাডিসের অ্যাসিস্ট্যান্ট প্রফেসর।

প্রতি দিন সামান্য ব্যায়ামই সুস্থ রাখবে ব্রেন

রিসার্চের জন্য লি এবং তার সহকর্মীরা ১৩০ জন স্বাস্থ্যবান আইটি প্রফেশনাল এবং স্কুলপড়ুয়াদের উপরে গবেষণাটি চালিয়েছেন। সেখানে দেখা গিয়েছে ১৬ মিনিট মতো কম ঘুম হলে বা নিরবিচ্ছিন্ন ঘুম না হলে পরের দিন বৌদ্ধিক ক্ষেত্রে পরিস্থিতি কিঞ্চিৎ নীচস্থ যায়। মানুষের কাজ এবং ব্যক্তিগত জীবনে ভারসাম্যের ক্ষেত্রে সমস্যা হয়। এই কারণে বলা হয় রাতে তাড়াতাড়ি ঘুমোতে যাওয়া এবং পরের দিন সকালে ওঠা জরুরি। এতে পরিশ্রান্ত হয়ে পড়ার সমস্যা এড়ানো যায়।


লি বলেছেন, ‘‘যারা পরিমাণ মতো ঘুমোন তারা কর্মক্ষেত্রে অনেক বেশি ফোকাসড থাকতে পারেন। এবং কর্মক্ষেত্রে তাদের দক্ষতাও বেশি প্রদর্শন করতে পারেন। দুশ্চিন্তা নিয়ে ঘুমোতে গেলে পরের দিন কর্মক্ষেত্রে তার ছাপ পড়ে। লি আরও বলেন, প্রতিটি কর্মীর বৌদ্ধিক উন্নয়নের জন্যই তাদের নিরবিচ্ছিন্ন ঘুম নিশ্চিত করতে হবে। গবেষকেরা দেখেছেন, কাজের দিনের তুলনায় সপ্তাহান্তে ঘুমের পরিমাণ সঠিক হওয়ায় মানুষের বৌদ্ধিক মাত্রাও উন্নততর থাকে।

অ্যাসিড হলেই অ্যান্টাসিড নয়, বরং বাড়িতে থাকা এই উপাদানেই আস্থা রাখুন

f6uqnvvg

মাত্র 16 মিনিট কম ঘুমনোও বিপদ ডেকে আনতে পারে

ভালো ঘুম নিশ্চিত করতে তিনটি খাবার

গরম দুধ

আয়ুর্বেদের মতে এক গ্লাস গরম দুধ নিরবিচ্ছিন্ন ঘুমের জন্য খুবই ভালো। অনেকের এর মধ্যে একটি লবঙ্গ এবং কিছু কুচোনো রসুনও মিশিয়ে দেন।

চেরি

চেরি ফল এমনিই খেতে ভালো। দিনে ১০টির মতো চেরি ফল নাকি রাতে নিরবিচ্ছিন্ন ঘুম সুনিশ্চিত করতে পারে।

ক্যামোমাইল চা

এই চা নার্ভের উপর থেকে চাপ কমায় ফলে মাথা অনেক শান্ত থাকে, এবং ঘুম ভালো হয়।


 

মন্তব্য

স্বাস্থ্যের খবর সাথে সুস্থ থাকার জন্য অভিজ্ঞদের টিপস, ডায়েট পরিকল্পনা জানতে, লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

................... বিজ্ঞাপন ...................

................... বিজ্ঞাপন ...................

................... বিজ্ঞাপন ...................

-------------------------------- বিজ্ঞাপন -----------------------------------