হোম »  ইনফেকশন »  আপনার শরীরেও করোনা সংক্রমণ? প্রাণ বাঁচাতে কী করবেন, করবেন না?

আপনার শরীরেও করোনা সংক্রমণ? প্রাণ বাঁচাতে কী করবেন, করবেন না?

ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৫০০ ছুঁইছুঁই। ইতিমধ্যেই মৃত্যু হয়েছে ৯ জনের।

আপনার শরীরেও করোনা সংক্রমণ? প্রাণ বাঁচাতে কী করবেন, করবেন না?

আগাম সাবধানতা সবার জন্য

  1. করোনা ভাইরাস পরীক্ষা করা কোনও সরকারি হাসপাতালে ছুটবেন না। কারণ, সেখানে এখন লম্বা লাইন। ফলে, দেরি হয়ে যাবে। এতে সংক্রমণ আরও বাড়বে। তাই বেসরকারি হাসপাতালেই পরীক্ষা সারুন। জেনে রাখুন, গত ১৪ দিনের মধ্যে COVID-19তে আক্রান্ত কোনও দেশে যদি বেড়াতে গিয়ে থাকেন বা সেসব দেশ থেকে আসা কোনও মানুষের সংস্পর্শে আসেন তাহলে এই সংক্রমণ হতে পারে। 
  2. এখন বেসরকারি ল্যাবেও যাবতীয় পরীক্ষার সুযোগ রয়েছে। নিজে যেতে না পারলে হেল্পলাইনে ফোন করে কাউকে নমুনা নিতে আপনার বাড়িতে আসার অনুরোধ জানান। তাঁরা রাজি না হলে সবার আগে সেল্ফ কোয়ারান্টাইনে যান। ফোনে জেনে নিন চিকিৎসকের কাছ থেকে। একান্তই হাসপাতালে যেতে হলে মাস্ক পরে যাবেন। অপেক্ষাকৃত কম ভিড় যেখানে সেখানে যান। এতে আপনার কষ্ট কমবে। কম সময়ে পরীক্ষা হবে। সংক্রমণ দ্রুত নিয়ন্ত্রিত হবে। এখন কিন্তু পরী৭া করতে চার দিন সময় লাগছে। পাশাপাশি, হাসপাতাল কিন্তু কোয়ারান্টিনে রাখছে না।
  3. ক-দিনে যাঁদের সঙ্গে দেখা করেছেন তার একটি তালিকা তৈরি করুন। তাঁদের জানান, আপনি সেল্ফ কোয়ারান্টাইনে আছে। 
  4. বাড়ির ভেতরে, পরিবারের সদস্যদের থেকে কমপক্ষে ৬ ফুট দূরে থাকুন। বিশেষত বয়স্ক সদস্যদের থেকে সরে থাকুন। কারণ, তাঁরা হাই রিস্ক জোনে রয়েছেন। সমস্ত দরজার হাতল, নব, স্যুইচ এবং আপনার স্পর্শ সমস্ত জিনিস স্যানিটাইজড করুন। করোনা ভাইরাস সম্ভবত ৮ ঘন্টা বেঁচে থাকে। ব্যবহৃত জিনিস অন্যকে ব্যবহার করতে দেবেন না।। স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন।
  5. হোয়াটসঅ্যাপ বা কোনও সোশ্যাল মিডিয়াতে পোস্ট করা চিকিৎসার পরামর্শগুলি অনুসরণ করবেন না। ডাক্তারবাবুর পরামর্শ নিন। সোশ্যালে প্রচুর ভুল তথ্য পরিবেশিত হচ্ছে।দরকারে প্যারাসিটামল খেতে পারেন চিকিৎসকের সঙ্গে কথা বলে। প্রচুর জলপান আর বিশ্রাম---এই রোগের একমাত্র দাওয়াই। 
  6. এতেই আগামী ৫-৭ দিনের মধ্যে অনেকটাই সুস্থ বোধ করছেন। উদ্বিগ্ন হবেন না। উদ্বেগ ছড়াবেন না।
  7. বেশি বাড়াবাড়ি যেমন শ্বাসকষ্ট শুরু হল তক্ষুণি হাসপাতালে যান। হয়ত ভেন্টিলেটর অক্সিজেনের প্রয়োজন হতে পারে। 
  8. আপনি যদি বয়স্ক, অসুস্থ বা কমজোরি হন কিংবা আপনার ডায়াবেটিস বা হার্টের অসুখ যদি থাকে তাহলে গাফিলতি করবেন না চিকিৎসায়। দেরি না করে সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে যান। চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। 
  9. মনে রাখবেন, করোনা ভাইরাস অত্যন্ত সংক্রামক। তাই এমন ভাবে থাকুন যাতে সংক্রমণ না ছড়ায়। মাস্ক পড়ুন। মুখ ঢেকে হাঁচুন, কাশুন। নাক-মুখ মুছে টিস্যুপেপার বন্ধ ডাস্টবিনে ফেলুন। অনেকটা একসঙ্গে জমলে পুড়িয়ে দিন। নিজে বাঁচুন অন্যকেও বাঁচান।
  10. এটাও মাথায় রাখবেন, প্রথমত, আপনার করোনা ভাইরাস হওয়ার সুযোগ খুব কম। দ্বিতীয়ত, যদি হয়ও তাহলে সঠিক নিয়ম মানলে একসপ্তাহের মধ্যে সুস্থ হয়ে উঠবেন। তৃতীয়ত, চিনে কিন্তু আর নতুন আক্রান্তের তথ্য নেই। অর্থাৎ, করোনাকেও জয় করা যায়।
মন্তব্য

স্বাস্থ্যের খবর সাথে সুস্থ থাকার জন্য অভিজ্ঞদের টিপস, ডায়েট পরিকল্পনা জানতে, লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

................... বিজ্ঞাপন ...................

................... বিজ্ঞাপন ...................

 

................... বিজ্ঞাপন ...................

-------------------------------- বিজ্ঞাপন -----------------------------------
Listen to the latest songs, only on JioSaavn.com