হোম »  হার্ট »  পাকিস্তানের ১৪ মাসের শিশুর হৃদয় ঠিক করে দিল ভারতের হাসপাতাল

পাকিস্তানের ১৪ মাসের শিশুর হৃদয় ঠিক করে দিল ভারতের হাসপাতাল

চিকিৎসকরা জানান, ওই শিশুটির হার্টের বাঁ-দিকটি স্বাভাবিকের তুলনায় চার গুণ বড়।

পাকিস্তানের ১৪ মাসের শিশুর হৃদয় ঠিক করে দিল ভারতের হাসপাতাল

শিশুটির ওজন ৬.৫ কিলোগ্রাম।

বিশালাকারের হার্টের ফলে সমস্যায় পড়েছিল পাকিস্তানের ১৪ বছর বয়সী এক শিশুকন্যা। বুধবার দিল্লির গঙ্গারাম হাসপাতালে সেই হার্টের অস্ত্রোপচার করলেন চিকিৎসকরা। অস্ত্রোপচারটি সফল হয়েছে বলেই জানা গিয়েছে। চিকিৎসকরা জানান, ওই শিশুটির হার্টের বাঁ-দিকটি স্বাভাবিকের তুলনায় চার গুণ বড়। ওই শিশুটি যে বিরল রোগটিতে ভুগছিল, তার নাম- জায়ান্ট লেফট অ্যাট্রিয়াম (জিএলএ)। যে রোগে মৃত্যুর সম্ভাবনা থেকে যায় প্রচুর। চিকিৎকরা জানিয়েছেন, শিশুটিকে যখন হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়, তখন তার দেহের ওজন ছিল মাত্র ৬.৫ কিলোগ্রাম। সেই কিছুই খেতে পারছিল না। ক্রমশ শুকনো হয়ে আসছিল শরীর। স্বাভাবিক শারীরবৃত্তীয় প্রক্রিয়াগুলিও বন্ধ হয়ে গিয়েছিল অনেকাংশেই। 

শিশুপুত্রের জন্মদাত্রী মায়েরা ডিপ্রেশনে ভুগছেন বেশি- বলছে গবেষণা

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, চিকিৎসা বিজ্ঞানের ইতিহাসে ২ বছরের কম বয়সী শিশুর ক্ষেত্রে এমন রোগের নজির প্রায় নেই বললেই চলে। একটি ওপেন হার্ট সার্জারির মাধ্যমে শিশুটিকে সুস্থ অবস্থায় ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করা হয়েছে। 


বাচ্চা বয়সে সোয়া দুধ খাওয়ালে বাড়তে পারে পিরিয়ডের ব্যথা

বিশালাকার হৃদয়ের মানুষ চিরকালই সমাদৃত হয়েছে আরও বহু মানুষের কাছে। সেই বিশাল হৃদয় সংক্রান্ত একটি অস্ত্রোপচার এখন দুই প্রতিবেশি দেশের বৈরিতা কমাতে পারে কি না, তা এখন বলবে সময়।

স্বাস্থ্য সম্পর্কিত আরও খবর পড়ুন এখানে



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদিত করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে.)
মন্তব্য

স্বাস্থ্যের খবর সাথে সুস্থ থাকার জন্য অভিজ্ঞদের টিপস, ডায়েট পরিকল্পনা জানতে, লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

................... বিজ্ঞাপন ...................

................... বিজ্ঞাপন ...................

................... বিজ্ঞাপন ...................

-------------------------------- বিজ্ঞাপন -----------------------------------