হোম »  ইমোশনস »  উদ্বেগে প্রাণ ওষ্ঠাগত? রোজের এই ৭ অভ্যাস দায়ী নয়তো!

উদ্বেগে প্রাণ ওষ্ঠাগত? রোজের এই ৭ অভ্যাস দায়ী নয়তো!

অনেকেই ঘুম ভাঙাতে বা আলস্য তাড়াতে কফি খান। কিন্তু ব্লাডপ্রেসার যখন লো তখনও অত্যধিক কফি পান করলে উদ্বেগ বাড়ে।

উদ্বেগে প্রাণ ওষ্ঠাগত? রোজের এই ৭ অভ্যাস দায়ী নয়তো!

Anxiety: রোজের কিছু অভ্যাস উদ্বেগ বাড়ায়

হাইলাইট

  1. কিছু অভ্যাস আরও বাড়ায় উদ্বেগ
  2. কম ঘুম উদ্বেগ বাড়ায় বই কমায় না
  3. লোকের সঙ্গে মিশলে উদ্বে অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে থাকে

উদ্বেগ (anxiety) বাড়ানোর হাজারো উপকরণ আপনার চারপাশে ছড়িয়ে। লোকের বাঁকা মন্তব্য, কাজের জায়গার টেনশন, সহকর্মীদের আচরণ ছাড়াও বাড়ির পরিবেশ, অতিরিক্ত কাজের চাপ, ব্যক্তিগত জীবনের হতাশা---এসবই উদ্বেগের অন্যতম একাধিক কারণ। তার সঙ্গে যদি নিজের রোজের কিছু অভ্যাস (These habits) যুক্ত হয়ে পরে তাহলে তো কথাই নেই! আপনি প্রতিপদে ঘেঁটে ঘ (anxiety increases)। এদিকে বুঝতেও পারছেন না, কিসে সমস্যা বাড়ছে। তাই আজ আপনার পাশে NDTV। জানাচ্ছে তেমনই কিছু অভ্যাসের কথা যা উদ্বেগ আরও বাড়ায়। এগুলো আপনার মধ্যে নেই তো?  

এই অভ্যাস বাড়ায় উদ্বেগ


১.  মাত্রাতিরিক্ত কফি 

অনেকেই ঘুম ভাঙাতে বা আলস্য তাড়াতে কফি খান। কিন্তু ব্লাডপ্রেসার যখন লো তখনও অত্যধিক কফি পান করলে উদ্বেগ বাড়ে। এতে হৃদস্পন্দন স্বাভাবিকের তুলনায় দ্রুত হয়। নার্ভাসনেসও বাড়ে। 

২. ঘুমের সমস্যা

উদ্বেগ বাড়ানোর অন্যতম নেপথ্য কারণ। পর্যাপ্ত ঘুম না হলে হরমোনের ভারসাম্য নষ্ট হয়ে যায়। অবসাদ বাড়ে। শরীর ক্লান্ত এবং অবসন্ন হয়ে পরে চট করে। কাজে মন বসে না। এবং উদ্বেগ বাড়ে। 

বাচ্চা পড়ায় অমনোযোগী? মনোযোগ বাড়াতে রইল সহজ টিপস

৩. ভালো-খারাপের দ্বন্দ্ব

মনে যদি সারাক্ষণ নেতিবাচক চিন্তা ঘোরে তাহলে উদ্বেগ কমবে কী করে? তাই যখনই মনে খারাপ চিন্তা আসবে ভালো কথা বা ইতিবাচক কোনও ঘটনার কথা ভাবুন। নইলে উদ্বেগ আপনার পিছু ছাড়বে না। 

সারাক্ষণ দুশ্চিন্তায় ভোগেন? চিন্তামুক্তির সহজ দাওয়াই এখানে...

৪. ঘনঘন মোবাইলে উঁকিঝুঁকি

মুঠো ফোমের নেশা সত্যিই সর্বনাশা। কে ফোন করল, কতবার করল, হোয়াটসঅ্যাপ এল কিনা দেখতে গিয়ে আপনিও যান্ত্রিক। এলেও দুশ্চিন্তা, কেন এল! না এলে আরো চিন্তা, কেন এল না! এসবের চক্করে খামোখা উদ্বেগ আরও বাড়াচ্ছেন জানেন কি? তাই প্রয়োজনের বাইরে যন্ত্র নিয়ে ঘাঁটাঘাঁটি না করাই ভালো। 

৫. না খাওয়া

ঠিক মত খাওয়া-দাওয়া না করলেও কিন্তু উদ্বেগ বাড়ে। কারণ, শরীরে পর্যাপ্ত খাবার না খেলে এনার্জি লেভেল কমে। শরীর অবসন্ন হয়। আপনি অবসাদে ভোগেন। ফলাফল, দুশ্চিন্তা।

সারাদিন বসে কাজ? জেনে নিন কীভাবে শরীর সচল রাখবেন

৬. একাকীত্ব

একা থাকা কিন্তু উদ্বেগ বাড়ানোর পক্ষে যথেষ্ট। তাই যখনই দেখবেন টেনশন বাড়ছে হয় ফোনে যোগাযোগ করুন বন্ধুর সঙ্গে। নয়তো, লোকজনের ভিড়ে নিজেকে মিশিয়ে নিন। যত কথা বলবেন এই সময়ে ততই উদ্বেগ কমবে। বন্ধুরা মনকে ফ্রেশ করে দেয়। এতে অবসাদ-উদ্বেগ সবই কমে। 

৭. নিজের সঙ্গে নেতিবাচক কথা

এই মুহূর্তে আমাদের চারপাশের পরিবেশ ভীষণ খারাপ, নেগেটিভ। তাই ইতিবাচক চিন্তা এর মধ্যে করা সত্যিই কষ্টের। তুচ্ছ কারণে একে অন্যকে সবসময় খারাপ মন্তব্য করছে বা ট্রোল করছে। তবু তার মধ্যেই যাঁরা ভালো কথা বলেন তাঁদের কথা মনে রেখে নিজের মনকে ইতিবাচক করুন। এতে আখেরে লাভ আপনার। 

সতর্কীকরণ: এই নিবন্ধের জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নন। তথ্য অনুসরণের আগে তাই বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নেওয়া বাঞ্ছনীয়। 

মন্তব্য

স্বাস্থ্যের খবর সাথে সুস্থ থাকার জন্য অভিজ্ঞদের টিপস, ডায়েট পরিকল্পনা জানতে, লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

................... বিজ্ঞাপন ...................

................... বিজ্ঞাপন ...................

 

................... বিজ্ঞাপন ...................

-------------------------------- বিজ্ঞাপন -----------------------------------